টাটকা মাছ চিনবেন কীভাবে? উপায় জানুন।

Published:

বাজারে গেলেই বিপদে পড়ে যাই আমরা অনেকেই । বিশেষ করে মাছের বাজারে যেতে হলে। একেই তো অর্ধেক মাছ চিনি না। তারপরও মাছ টিপেটুপেও নিশ্চিত হতে পারি না টাটকা মাছ কিনা। সিদ্ধান্ত নিতেই কেটে যায় অনেকটা সময়। দাম কম বেশির থেকেও বেশি টেনশনটা হলো, মাছ পচা হবে না তো?

যারা আমার মত একই সমস্যায় ভুগছেন তাদের জন্য রইলো তাজা মাছ চিনে নেওয়ার সহজ কিছু উপায়।

১. মাছের কানকো

জ্যান্ত বা তাজা মাছের কানকো হাত দিয়ে তুলে দেখতে হবে । তাজা মাছের কানকোর রঙ দেখতে ভেজা মনে হবে। আর বাসি মাছ হলে কানকোর রঙটাকে শুকিয়ে যাওয়া মনে হবে। আবার আঙুল দিয়ে পরীক্ষা করে দেখুন, রংটা আসল কি না । তাজা মাছের কানকোর রঙ হয় গাঢ় লাল বা মেরুন রঙের। আবার বাসি মাছের কানকো হয় একটু সাদাটে বা ফিকে। তাই সব সময় পরীক্ষা করতে ভুলবেন না।

২. টাটকা মাছ এর চোখ

সব থেকে আগে হাত দিয়ে ধরার আগে মাছের চোখ দেখুন। মাছ তাজা দেখাতে এতে বিভিন্ন রাসায়নিক দেওয়া হয়। কিন্তু যতই রাসায়নিক দেওয়া হোক, এর চোখ কিন্তু ঢাকা যায় না। তাজা মাছের চোখটা জ্বলজ্বলে হয় । চোখ যত সাদা ও ঘোলাটে হবে, ধরে নিতে হবে মাছটা ততটা বাসি।

টাটকা মাছ
টাটকা মাছ

৩. টাটকা মাছ এর ঘ্রাণ

কাজটা অবশ্যই একটু অস্বস্তিকর। কিন্তু মাছ তাজা কি না বুঝতে এটা খুবই কাজের একটা উপায় । যে মাছটা কিনবেন সম্ভব হলে নাকের কাছে নিয়ে সেটার গন্ধ শুঁকে দেখুন। তাজা মাছ হলে বিশেষ কোনও গন্ধ পাবেন না। তবে খানিকটা শ্যাওলা বা কাঁদার গন্ধ পেতে পারেন। তবে সেটা নাকে তেমন ধাক্কা দেবে না। আর যদি কড়া আঁশটে গন্ধ পান, তবে বুঝতে হবে মাছটা পুরোপুরি পচা না হলেও বাসি। কিছু সময় পরই পচন ধরবে। এবং এই গন্ধটা রান্নার পরও থাকতে পারে।



৪. মাছের চামড়া

তাজা মাছের বাইরেটা হয় বেশ চকচকে, যাকে বলে মেটালিক টেক্সচার। বাসি মাছের ত্বক হবে সাদাটে বা ফ্যাকাসে। আবার তাজা মাছের গায়ে হাত দিয়ে খুব জোরে ঘষা দিলেও সহজে আঁশ ছুটে আসবে না। সবশেষে অনেকের মতো মাছটা টিপেও দেখুন। আঙুল সরানোর সঙ্গে সঙ্গে যদি বাউন্স করে আবার ত্বক সমান হয়ে যায় তবে মাছটা তাজাই আছে।বাসি মাছে হলে সেটা ডেবেই থাকে কিংবা উঠে আসতে অনেক সময় লাগে।

Related articles

spot_img

Recent articles

spot_img